সম্পাদক আবদুস সালাম স্মারক বৃত্তি  পেলেন ঢাবি’র ৫জন শিক্ষার্থী

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 

২০১৪ সালের বিএসএস (সম্মান) পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগের ৫জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে “সম্পাদক আবদুস সালাম স্মারক বৃত্তি” প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া, সাংবাদিকতায় অনন্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ সাংবাদিক শাহেদ কামালকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়।
আজ ১৬ জুলাই ২০১৭ রবিবার মোজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগ আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে বৃত্তির চেক তুলে দেন। 
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো: কামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে  বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মফিজ উদ্দিন । এছাড়া, আরও বক্তব্য রাখেন সম্পাদক আবদুস সালামের কন্যা রেহানা সালাম । অনুষ্ঠানে “সম্পাদক আবদুস সালাম স্মারক বক্তৃতা” প্রদান করেন বিভাগীয় অনারারি অধ্যাপক ড. সাখাওয়াত আলী খান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিভাগের  সহযোগী অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস। এসময় প্রয়াত সাংবাদিক আবদুস সালাম ও এ বি এম মুসার পরিবারের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, প্রয়াত সাংবাদিক এ বি এম মুসা শ্বশুরের স্মৃতি রক্ষার্থে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে “সম্পাদক আবদুস সালাম মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ফান্ড” গঠন করেছিলেন।
উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ইতিবাচক সাংবাদিকতার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, সমাজে সত্য প্রতিষ্ঠায় সাংবাদিকদের সততা ও সাহসিকতার সাথে নিরলসভাবে কাজ করতে হবে। প্রয়াত সাংবাদিক আবদুস সালাম এবং এ বি এম মুসার আদর্শ অনুসরণের মাধ্যমে সাংবাদিকতা পেশার উন্নয়ন ঘটানোর জন্য উপাচার্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান। উপাচার্য তথ্য সমৃদ্ধ স্মারক বক্তৃতা প্রদান করায় অধ্যাপক ড. সাখাওয়াত আলী খানকে ধন্যবাদ দেন এবং বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্রদের অভিনন্দন জানান। এছাড়া, তিনি আজীবন সম্মাননা পাওয়া বিশিষ্ট সাংবাদিক শাহেদ কামালকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান।
বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- ফারুক হোসেন, মো: জাহিদুর রহমান, মো: মাহমুদুল হাসান, নাজমুল হাসান এবং হোসনেয়ারা। 
        --------------------
(মাহমুদ আলম)
উপ-পরিচালক
জনসংযোগ দফতর                                                         ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

২০১৪ সালের বিএসএস (সম্মান) পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগের ৫জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে “সম্পাদক আবদুস সালাম স্মারক বৃত্তি” প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া, সাংবাদিকতায় অনন্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ সাংবাদিক শাহেদ কামালকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়। আজ ১৬ জুলাই ২০১৭ রবিবার মোজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগ আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে বৃত্তির চেক তুলে দেন। ছবিতে অতিথিদের সাথে বৃত্তিপ্রাপ্তদের দেখা যাচ্ছে। 

২০১৪ সালের বিএসএস (সম্মান) পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগের ৫জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে “সম্পাদক আবদুস সালাম স্মারক বৃত্তি” প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া, সাংবাদিকতায় অনন্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ সাংবাদিক শাহেদ কামালকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়। আজ ১৬ জুলাই ২০১৭ রবিবার মোজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগ আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে বৃত্তির চেক তুলে দেন। ছবিতে উপাচার্যকে প্রধান অতিথির ভাষণ দিতে দেখা যাচ্ছে। 
 

Upcoming Event
  • ঢাবি ‘প্রযুক্তি ইউনিট’-এর অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু আগামী ৩ ডিসেম্বর

    05/01/2018

    Read more...
  • “Networking and Discussion on Rohingya Crisis” by Swedish Institute

    20/12/2017

    Read more...
  • ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তি ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীকে সামনে রেখে পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পাস গড়ার আহ্বান

    16/12/2017

    Read more...
  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে কর্মসূচী

    16/12/2017

    Read more...
  • মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ঢাবির কর্মসূচী

    16/12/2017

    Read more...
  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচী

    14/12/2017

    Read more...
  • ঢাবি সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন নির্বাচন আগামী ১৩ ডিসেম্বর

    13/12/2017

    Read more...